1. samiullah4324@gmail.com : khoborerdakghar com : khoborerdakghar com
  2. khoborerdakghar@gmail.com : Samia Sami : Samia Sami
  3. mdsamiullahsami1@gmail.com : Samiullah Sami : Samiullah Sami
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৭:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ধর্ষণের ভিডিও দেখিয়ে ব্লাকমেইল করে বারবার ধর্ষণ! পেছাতে পারে ২০২১ সালের এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা যশোরে ছোট ভাইয়ের সার্টিফিকেট নিয়ে বড় ভাইয়ের চাকুরী : মামলা দায়ের নওগাঁয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাঁকা ঘর দেওয়ার নামে কোটি টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ উলিপুরে ফেনসিডিলসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার আসন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ উলিপুরে আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা কুমিল্লার বিভিন্ন হাসপাতাল ও মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন করোনায় আক্রান্ত জমজ নবজাতকের মৃত্যু, তিন হাসপাতালের ব্যাখ্যা হাইকোর্টে শপথ নিলেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, ঘটকসহ গ্রেপ্তার ২ মসজিদে চুমু খেয়ে ঢুকলেন আজেরি প্রেসিডেন্ট, রাখলেন কুরআন ঝালকাঠিতে দুই’শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ সোনিয়া গ্রেফতার এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হওয়া ইসলামপুরে আনন্দ মিছিল ক্রয় কমিটিতে কৃষক সংগঠন প্রতিনিধিকে স্থান দেওয়ায় ইসলামপুরে কৃষকলীগের আনন্দ মিছিল ১০৭০২ কোটি টাকা ব্যয়ে একনেকে ৭ প্রকল্প অনুমোদন লাখাইয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ বিরোধী সমাবেশ সেনবাগে এম এ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি,বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী,ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক আবদুল আলী সাহেবের দাফন সম্পন মৌলভীবাজারে আমন কাটায় ব্যস্ত : শীষে ধানের পরিমান কম, ইঁদুর ও কচুরিপানায় ক্ষতি কৃষকদের দাবী মৌলভীবাজারে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে ২০টি স্থানে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান মৌলভীবাজার উপজেলা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন সারা রাত ধরে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন পাটগ্রামে ক্ষুদ্র প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ হাঁস পালনে স্বাবলম্বী বিদেশ ফেরত রাজগঞ্জের মাসুদ রানা যশোরের মণিরামপুরে পিস ফ্যাসিলিটেটর গ্রুপের ফলোআপ মিটিং অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে শ্রী রামকৃঞ্চ আশ্রমের মন্দিরের কাজ উদ্বোধন বিবিসির ১০০ নারীর তালিকায় ঠাঁই পেলেন যে দুজন বাংলাদেশি প্রেমিকার বিয়ের খবর পেয়ে প্রেমিকের আত্মহত্যা বরিশালে বিভাগীয় পর্যায়ে খাদ্যে ট্রান্সফ্যাক, হৃদরোগের ঝুঁকি এবং করনীয়: ভোক্তা পরিপ্রেক্ষিত শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত পিরোজপুরের কাউখালীতে ৫ কেজি গাঁজা সহ পিতা পুত্র আটক গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন উলিপুরে বাসের ধাক্কায় শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু চিলমারীতে বিনামূল্যে সোলার হোম সিস্টেম বিতরণ ভোলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারী কর্মির সাথে শারীরিক সম্পর্ক মাস্ক পরতে বাধ্য করতে আরও কঠোর হচ্ছে সরকার চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর, আসছে দুটি বিসিএস সৌদিতে নেতানিয়াহুর সঙ্গে যুবরাজের গোপন বৈঠক বরিশালে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা মূলক ক্যাম্পেইন ও ফ্রি মাস্ক বিতরণ লালমনিরহাটে বিদ্যুতের আগুনে পুড়লো ১১ দোকান হাতীবান্ধায় মাস্ক না পরায় জরিমানা

করোনার সঙ্গে যেভাবে মানিয়ে চলবেন

  • Update Time : 7:59 am, Mon, 1 June 20

স্টাফ রিপোর্টার : বিরূপ পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য মানসিক প্রস্তুতি জরুরি । মন তৈরি হলে যেকোনো কাজে মনোযোগ, মনোবল, ইতিবাচক চিন্তা করার ক্ষমতা সবই বাড়বে। করোনার দীর্ঘমেয়াদি সর্বগ্রাসী আক্রমণ ঠেকাতে হলে বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে:

ধারণা করা হয়েছিল ঘরে থাকলে ও নিয়ম মানলে করোনা কাছে ঘেঁষতে পারবে না। সংক্রমণের শৃঙ্খল ভেঙে যাবে। কমবে মহামারির প্রকোপ। আর বিজ্ঞানীদের গবেষণা তো চলছেই। ওষুধ বা টিকা কিছু একটা বেরলে সমস্যা মিটবে পুরোপুরি।

কিন্তু কোনটাই হলো না। কিছু মানুষ লকডাউন মানলেন, কিছু মানলেন না, কেউ কেউ মানতে পারলেন না। ফলে সংক্রমণের গ্রাফ ঊর্ধমুখী হচ্ছে ক্রমশ। এ পরিস্থিতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েই দিল, এ বার ডেঙ্গু, এইডসের মতো ধীরে ধীরে অদৃশ্য এই শত্রুর সঙ্গে বসবাসের কৌশল শিখে নিন।

ভারতের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অমিতাভ নন্দী বলেন, নিয়ম মানলে তো ভাল। কিন্তু যা হচ্ছে তা কোনো নিয়ম নয়। অবৈজ্ঞানিক সব ব্যাপার। এই যে গরমের মধ্যে ঘণ্টায় ঘণ্টায় গরম জল খাচ্ছেন, চা খাচ্ছেন, কী এর কারণ? ভাইরাস মরবে? ভাইরাসকে মারতে গেলে জলের তাপমাত্রা যা হতে হবে, তাতে তো মানুষই মরে যাবে!

তিনি বলেন, কেউ আবার রোদে দাঁড়িয়ে থাকছেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা। কারণ তাতে ভিটামিন ডি তৈরি হবে, করোনা পালাবে! ভিটামিন ডি দরকার। এখন বলে নয়, সব সময়েই দরকার। কিন্তু বাড়াবাড়ি করলে তো বিপদ। আসলে মানুষকে ভাল করে বোঝানো হচ্ছে না। স্রেফ বলে দেওয়া হচ্ছে এটা করো, ওটা করো। কেন করতে হবে, না করলে কী হবে তা না বুঝলে যা হয়। কেউ গুরুত্ব দিচ্ছেন না। কেউ বাড়াবাড়ি করছেন। আর রোগ থেকে যাচ্ছে রোগের মতো। মহামারির মোকাবিলা এ ভাবে হয় না।

তার পরামর্শ, সমাজের সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে সমন্বয় গড়ে তুলতে হবে। ট্রেনিং দিতে হবে। তারপর সবাই যখন বুঝবেন এই পথে চললে ভাল হবে, তারা নিজেরাই ঠিকঠাক নিয়ম মানবেন, চাপিয়ে দিতে হবে না।

জনস্বাস্থ্য বিষয়ক চিকিৎসক সুবর্ণ গোস্বামী বলেছেন, রোগ ঠেকানোর ৮০ শতাংশ চাবিকাঠি আছে হাত ধোওয়ার মধ্যে। কিন্তু তার মানে এই নয় যে ঘণ্টায় ঘণ্টায় হাত ধুতে হবে। আপনি যদি এমন জায়গায় হাত দেন যেখানে জীবাণু থাকার আশঙ্কা আছে, যেমন গণপরিবহণে উঠলে, লিফটের বোতাম-দরজার হাতল বা সিঁড়ির রেলিং ধরলে, পাঁচ জন ব্যবহার করে এমন কিছুতে হাত দিলে, টাকা দেওয়া-নেওয়া করলে ইত্যাদি, সেই হাত নাকে-মুখে-চোখে বা অন্য কোথাও লাগার আগেই ভাল করে ধুয়ে নিতে হয়। ধুতে হয় খাওয়ার আগে, টয়লেট থেকে এসে। কাজেই বাইরে বেরনোর সময় সঙ্গে ছোট একটা সাবান ও ৭০ শতাংশ অ্যালকোহল আছে এমন স্যানিটাইজার নিন। কিছু টিস্যু পেপার বা পরিষ্কার রুমাল রাখুন। হাত ধোওয়ার সুযোগ থাকলে সাবান পানিতে হাত ধুয়ে নিন। না হলে স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। সাধারণ সাবান হলেই হবে। অ্যান্টিব্যাক্টিরিয়াল সাবানের কোনও দরকার নেই। তার আলাদা কোনও ভূমিকা নেই। তা ছাড়া আপনার লড়াই তো ব্যাক্টিরিয়ার বিরুদ্ধে নয়, ভাইরাসের বিরুদ্ধে।

• সাধারণ মানুষের গ্লাভস পরার দরকার নেই। নিয়ম মেনে না পরলে উল্টে বিপদের আশঙ্কা বেশি। তার চেয়ে হাত ধুয়ে নেওয়া অনেক নিরাপদ।

• রাস্তায় বেরলে মাস্ক বাধ্যতামূলক। অফিসেও পরে থাকবেন। কাপড়ের ট্রিপল লেয়ার মাস্ক সবচেয়ে ভাল। তবে গরমে অসুবিধে হলে ডাবল লেয়ারই পরুন। বেশ বড় মাপের। নাকের উপর থেকে চিবুকের নীচ ও কান পর্যন্ত গালের পুরোটাই ঢাকা থাকতে হবে। আপনার ৬ ফুটের মধ্যে কেউ যেন মাস্ক ছাড়া আসতে না পারে, সে দিকে খেয়াল রাখবেন। বাড়ি ফিরে সাবান পানিতে মাস্ক ধুয়ে শুকিয়ে নিতে হবে। বা যদি ৫টা মাস্ক থাকে ও আলাদা করে রাখার জায়গা থাকে, পর পর ৫ দিন আলাদা আলাদা মাস্ক পরে আবার ষষ্ঠ দিন আবার এক নম্বর মাস্ক দিয়ে শুরু করতে পারেন। রোগ ঠেকানোর ২০ শতাংশ দায়িত্ব আছে মাস্কের উপর।

• মাস্ক পরছেন বলে মানুষের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখবেন না, এমন যেন না হয়। ৬ ফুটের বেশি দূরত্ব রাখতে পারলে সবচেয়ে ভাল। নয়তো কম করে ৩ ফুট।

• চোখে চশমা থাকলে আর কোনো সাবধানতা লাগবে না। না থাকলে রোদচশমা পরেন। কারণ চোখ দিয়েও কিন্তু জীবাণু ঢুকতে পারে।

• বড় চুল হলে চুল ভাল করে বেঁধে স্কার্ফ বা ওড়নায় মাথা ঢেকে নেবেন। কারণ বাসে-ট্রামে খোলা চুল অন্যের নাকে-মুখে উড়ে লাগতে পারে। তাদের রোগ আছে কি না তাতো জানেন না। সেই চুল আপনার নাকে-মুখে লাগলে বিপদ হতে পারে। তা ছাড়া বড় চুলে রোজ শ্যাম্পুও করা যায় না। বিপদ বাড়ে তা থেকে।

• নিয়মিত ধোওয়া যায় এমন স্যান্ডেল বা জুতো পরে বেরবেন।

• গয়নাগাটি পরে বেরবেন না। কারণ ধাতুর উপর প্রায় পাঁচ দিন থেকে যেতে পারে জীবাণু। ঘড়ি পরারও দরকার নেই।

• অফিসে নিজস্ব কাপ রেখে দেবেন। সাবান-পানিতে ধুয়ে সেই কাপে চা বা কফি খাবেন।

• বাড়ি থেকে টিফিন নিয়ে যাবেন। নয়তো খোসা ছাড়িয়ে খেতে হয় এমন ফল খাবেন। প্যাকেটের বিস্কুট বা বাদাম খেতে পারেন মাঝেমধ্যে। প্যাকেট খুলে পরিষ্কার করে ধোওয়া পাত্রে ঢেলে তারপর হাত ধুয়ে খাবেন।

• রাস্তার কিছু খাওয়া এ সময় ঠিক নয়। বড় রেস্তরাঁয় যদি সব নিয়ম মেনে খাবার বানানো হয়, এক-আধ বার খেতে পারেন। তবে সে সবও যত এড়িয়ে যেতে পারবেন তত ভাল। খাবার বাড়িতে এনে গরম করে খেলে অবশ্য অসুবিধে নেই।

• জুতো বাইরে খুলে ঘরে ঢুকবেন। পাঁচ জোড়া জুতো থাকলে এক এক দিন এক একটা পরতে পারেন। ষষ্ঠ দিনে আবার প্রথম জোড়াটা পরবেন। কারণ ৫ দিন পর্যন্ত ভাইরাস লেগে থাকতে পারে জুতোয়। না থাকলে সাবান-পানিতে জুতো ধুয়ে তবে ঘরে ঢোকাতে পারবেন। এর পর বাথরুমে গিয়ে জামাকাপড়, চশমা সাবান-পানিতে ধুয়ে, তুলোয় স্যানিটাইজার ভিজিয়ে মোবাইল পরিষ্কার করে ভাল করে সাবান মেখে, শ্যাম্পু করে গোসল করবেন।

• বাড়িতে কাজের লোক বা অন্য কেউ এলে ঘরে ঢোকার আগে হাত এবং পা ভাল করে সাবান পানিতে ধুয়ে নিতে হবে। ধোওয়া মাস্ক পরতে হবে। স্নান করে জামাকাপড় বদলে নিতে পারলে আরও ভাল।

• খাওয়াদাওয়ার দিকে নজর দিতে হবে। বাহুল্য বর্জিত হালকা খাবারই ভাল এই সময়। ঘরে বানানো সাধারণ বাঙালি খাবার। ভাজা-মিষ্টি একটু কম খাওয়া ভাল। ফল খাবেন সুবিধেমতো। মাছ-মাংস-ডিম, যাঁর যেমন সুবিধে।

• প্রচুর পানি খাওয়ার কোনও দরকার নেই। শরীর যতটুকু চায় ততটুকু খেলেই হবে।

• ভেষজ উপাদান খেতে ইচ্ছে হলে খাবেন। না খেলেও ক্ষতি নেই। কারণ আদা, ভিনিগার ইত্যাদিরা ভাইরাস মারতে পারে না। পুষ্টিকর সহজপাচ্য খাবার খেলে, অল্প ব্যায়াম করলে ও ভাল করে ঘুমোলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এমনিই ঠিক থাকবে।

• গায়ে হালকা রোদ লাগানো খুবই দরকার। সকালের দিকে একটু মর্নিং ওয়াকে গেলে ব্যায়ামও হবে, রোদও লাগবে গায়ে। ভাইরাস বাতাসে ভেসে বেরায় না। কাজেই ভয় নেই। সময় থাকলে একটু বেলার দিকেও বেরতে পারেন। চড়া রোদ ঠেকাতে ছাতা নিয়ে নেবেন। মানুষের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখাও সহজ হবে।

• অনেকের ধারণা সনা বাথ নিলে ভাইরাস মরে। ভুল ধারণা। গরমের মধ্যে ও সব করার দরকার নেই।

• জিম বা বিউটি পার্লারে এখনই যাওয়ার দরকার নেই।

যতটা সম্ভব স্বাভাবিক জীবনযাপন করুন। নিয়ম মানুন। অতিরিক্ত কিছু করার দরকার নেই। করে লাভও নেই। কারণ কিসে ভাইরাস মরবে, তা কেউ জানে না। কাজেই তার থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করাই বুদ্ধিমানের কাজ। খবর আনন্দবাজার।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ

       

সম্পাদক ও প্রকাশক : সামিউল্লাহ সামি 

নির্বাহী সম্পাদক : মহসিন রায়হান

আইন উপদেষ্টা : মোঃ তৌহিদুল ইসলাম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় :

২১৯ মাজার রোড, মিরপুর, ঢাকা-১২১৬

📱Phone : +8801713926277, +8809638192947

📧  Email : khoborerdakghar@gmail.com

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত খবরের ডাকঘর  ||

Design & Development By Hostitbd.Com
error: কপি করা নিষেধ !!