1. samiullah4324@gmail.com : khoborerdakghar com : khoborerdakghar com
  2. khoborerdakghar@gmail.com : Samia Sami : Samia Sami
  3. mdsamiullahsami1@gmail.com : Samiullah Sami : Samiullah Sami
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ইসলামপুরে থানা অফিসার্স ইনচার্জের বিদায় ও বরণ ভোলায় করোনায় ব্যবসায়ীর মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২ জামালপুরে সাংবাদিক গড়ার কারিগর শফিক জামানকে স্মরণ রমজানে তেল-পেঁয়াজ-চিনির দাম নির্ধারণ ফুলবাড়ীতে বিএসএফের গুলিতে আহত ভারতীয় যুবককে বিএসএফের কাছে হস্তান্তর ইসলামপুরে সন্ত্রাসীদের হামলায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে হামলার শিকার হাবিবুল্লাহ নতুন বিধিনিষেধ আরোপ করে প্রজ্ঞাপন প্রকাশ কার্গো জাহাজ আসতে দেখেই নদীতে ঝাঁপ দিল নৌকার ২০ যাত্রী নওগাঁয় অধিক লাভে অনেকেই ঝুঁকছেন পান চাষে বাংলাদেশে করোনায় ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড ৭৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৫,৩৪৩ বরিশালে করোনা ২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ১০২, মৃত্যু ২ রৌমারীতে তহশিলদার ও সার্ভেয়ারের সহায়তায় পুকুর দখলের অভিযোগ গোমস্তাপুরে গৃহবধূর আত্মহত্যা গোমস্তাপুরে তরুন সংঘের উদ্বোধন ও হাজার মাস্ক বিতরণ ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউন, জরুরি সেবার প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব বন্ধ ভোলার তজুমদ্দিনে সাটারের তালা ভেঙ্গে দোকানে দূধর্ষ চুরি হাতীবান্ধায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের মাক্স বিতরণ সুন্দরগঞ্জে ভুয়া ডিবি পুলিশ গ্রেফতার রহনপুর পৌরসভার ৩১ কর্মচারীকে অব্যাহতি বাংলাদেশ স্কাউট দিবস উপলক্ষে নওগাঁ মাস্ক বিতরণ চিলমারী প্রেস ক্লাবের কমিটি গঠন সাবু সভাপতি, মমিনুল সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত কুড়িগ্রামের বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ায় হচ্ছে বাসকপাতার চাষ বোয়ালমারীতে সাজাপ্রাপ্ত দুই আসামী গ্রেফতার লাখাইয়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা সফর আলীকে রাষ্ট্র্রীয় মর্যাদায় শেষ বিদায় লালমোহনে সরকার কর্তৃক ঘোষিত লকডাউন অমান্য ও মাস্ক না থাকায় ১৬ জনের জরিমানা পাবনা সরকারি এর্ডওয়ার্ড কলেজের অধ্যক্ষকে অপসারন ও শাস্তির দাবিতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিবাদ সভা দুই প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃতি, মাদরাসাশিক্ষক গ্রেফতার লালমনিরহাটে শিলাবৃষ্টিতে ফসলের ক্ষতি গোমস্তাপুরে কালভার্ট ভেঙ্গে পড়ায় জনদুর্ভোগ চরমে শুক্রবার থেকে ৮ ঘন্টা খোলা থাকবে শপিংমল মাঝনদীতে ফেরিতে ৫ ট্রাক ও পিকআপে আগুন কচুয়াতে ১ যুবক আহত সুন্দরগঞ্জে ২ জুয়ারির জেল কুড়িগ্রামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, কর্মহীন শত শত দিনমজুর কুড়িগ্রামে হোটেলে খাবার পরিবেশন করায় জরিমানা কৃষকদের সাথে নিয়ে ধান কাটা উদ্ভোধন করলেন সুনামগঞ্জের ডিসি মানবিক সেবায় মানুষের পাশে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাব লালমনিরহাটে জামায়াত, হেফাজতের ৯ নেতা-কর্মী গ্রেফতার যশোরে নতুন করে আরও ৪৯ জনের করোনা শনাক্ত: এক নারীর মৃত্যু নওগাঁয় মানা হচ্ছেনা লকডাউন: লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত

ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস আজ

  • Update Time : 7:58 am, Sun, 7 June 20

ছবি: ফাইল

নিজস্ব প্রতিবেদক : আজ ৭ জুন। ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে ৭ জুন এক অবিস্মরণীয় ও তাৎপর্যপূর্ণ দিন। ১৯৬৬ সালের এই দিন বাঙালির মুক্তির সনদ ৬ দফা আদায়ের লক্ষ্যে আওয়ামী লীগের ডাকে হরতাল চলাকালে নিরস্ত্র জনতার ওপর পুলিশ ও তৎকালীন ইপিআর গুলিবর্ষণ করে। এতে ঢাকা এবং নারায়ণগঞ্জে মনু মিয়া, সফিক ও শামসুল হকসহ ১১ জন শহিদ হন। শহিদের রক্তে ৬ দফা আন্দোলন স্ফুলিঙ্গের মতো দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র; রাজপথে নেমে আসে বাংলার মুক্তিকামী জনগণ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ ৬ দফা দাবির পক্ষে দেশব্যাপী তীব্র গণ-আন্দোলনের সূচনা হয়।

এরপর থেকেই বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আপসহীন সংগ্রামের ধারায় উনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থানের দিকে এগিয়ে যায় পরাধীন বাঙালি জাতি। পরবর্তী সময়ে ঐতিহাসিক ৬ দফাভিত্তিক নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনই ধাপে ধাপে বাঙালির স্বাধীনতার সংগ্রামে পরিণত হয়।

পাকিস্তানি শাসন-শোষণ-বঞ্চনা থেকে মুক্তির লক্ষ্যে স্বৈরাচার আইয়ুব সরকারের বিরুদ্ধে ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি লাহোরে তৎকালীন পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের সব বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে ডাকা এক জাতীয় সম্মেলনে পূর্ব বাংলার জনগণের পক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৬-দফা দাবি উত্থাপন করেন। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১১ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় ফিরে ৬ দফার পক্ষে দেশব্যাপী প্রচারাভিযান শুরু করেন এবং বাংলার আনাচে-কানাচে প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে জনগণের সামনে ৬ দফার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন। বাংলার সর্বস্তরের জনগণ এই ৬ দফা সম্পর্কে সম্যক ধারণা অর্জন করে এবং ৬ দফার প্রতি স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থন জানায়। ৬ দফা বাঙালির মুক্তির সনদ হিসেবে বিবেচিত হয়। ৬ দফা হয়ে ওঠে পূর্ব বাংলার শোষিত-বঞ্চিত মানুষের মুক্তির সনদ।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য যারা জীবন দিয়েছেন, তাদের স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান। দিবসটি প্রতিবছর যথাযথ কর্মসূচির মাধ্যমে সাড়ম্বরে পালন করে আওয়ামী লীগসহ গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলগুলো। কিন্তু এবার করোনাভাইরাসের বিস্তারের কারণে সীমিত আকারে এবং ভিন্ন আঙ্গিকে দিবসটি পালিত হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ‘ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস’ উপলক্ষে ঐতিহাসিক ৭ জুনের সব বীর শহিদ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লক্ষ শহিদের আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে পরম করুণাময়ের নিকট প্রার্থনা করার জন্য আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। একইসঙ্গে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নির্দেশনা প্রতিপালনের মধ্য দিয়ে করোনা সংকট মোকাবিলায় চলমান কর্মোদ্যোগকে আরো গতিশীল করার জন্য আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানি শাসন, শোষণ ও বঞ্চনা থেকে মুক্তির লক্ষ্যে আইয়ুব খান সরকারের বিরুদ্ধে নিখিল পাকিস্তান আওয়ামী লীগের সভাপতি নবাবজাদা নসরুল্লাহ খানের নেতৃত্বে লাহোরে তৎকালীন পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের সব বিরোধী রাজনৈতিক দল নিয়ে এক জাতীয় সম্মেলন আহ্বান করা হয় । বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ দিন অনুষ্ঠিত সম্মেলনের সাবজেক্ট কমিটিতে ৬ দফা উত্থাপন করেন। পরের দিন সম্মেলনের আলোচ্য সূচিতে যাতে এটি স্থান পায়, সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেন। কিন্তু এই সম্মেলনে বঙ্গবন্ধুর এই দাবির প্রতি আয়োজক পক্ষ গুরুত্ব প্রদান করেনি। তারা এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে। প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধু সম্মেলনে যোগ না দিয়ে লাহোরে অবস্থানকালেই ৬ দফা উত্থাপন করেন। এ নিয়ে পশ্চিম পাকিস্তানের বিভিন্ন খবরের কাগজে বঙ্গবন্ধুকে বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা বলে চিহ্নিত করা হয়।

পরে ঢাকায় ফিরে বঙ্গবন্ধু ১৩ মার্চ ৬ দফা এবং এ ব্যাপারে দলের অন্যান্য বিস্তারিত কর্মসূচি আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদে পাস করিয়ে নেন। ৬ দফার মূল বক্তব্য ছিল প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র বিষয় ছাড়া সব ক্ষমতা প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকবে। পূর্ব বাংলা ও পশ্চিম পাকিস্তানে দুটি পৃথক ও সহজ বিনিময়যোগ্য মুদ্রা থাকবে। সরকারের কর, শুল্ক ধার্য ও আদায় করার দায়িত্ব প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকাসহ দুই অঞ্চলের অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার আলাদা হিসাব থাকবে। পূর্ব বাংলার প্রতিরক্ষা ঝুঁকি কমানোর জন্য এখানে আধা সামরিক বাহিনী গঠন ও নৌবাহিনীর সদর দপ্তর স্থাপন।

বঙ্গবন্ধু ঘোষিত ৬ দফা দাবির মুখে পাকিস্তানের তৎকালীন সামরিক শাসক আইয়ুব খান বিচলিত হয়ে পড়েন। তিনি হুমকি দিয়ে বলেন, ৬ দফা নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে অস্ত্রের ভাষায় জবাব দেয়া হবে। তার হুমকি উপেক্ষা করে ৬ দফা কর্মসূচি জনগণের মধ্যে পৌঁছে দেয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা সমগ্র পূর্ব বাংলা সফর করেন। ৬ দফাকে বাঙালির বাঁচার দাবি হিসেবে অভিহিত করেন।

বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তাজউদ্দীন আহমদ, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, মিজানুর রহমান চৌধুরী, জহুর আহমদ চৌধুরী ও নুরুল ইসলাম চৌধুরী গণসংযোগে অংশ নেন। যশোর, ময়মনসিংহ, সিলেটসহ কয়েকটি স্থানে ৬ দফার পক্ষে প্রচারকালে বঙ্গবন্ধু গ্রেপ্তার হন। এই দাবির সপক্ষে বাঙালি জাতির সর্বাত্মক রায় ঘোষিত হয় ১৯৭০ সালের ঐতিহাসিক সাধারণ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসনে বাঙালিরা বিজয়ী করে।

অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধুর দলকে জনগণ বিজয়ী করলেও স্বৈরাচারী পাকিস্তানি শাসকেরা বিজয়ী দলকে সরকার গঠন করতে না দিলে আবার বঙ্গবন্ধু জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার পক্ষে আন্দোলন শুরু করেন। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক  : সামিউল্লাহ সামি। নির্বাহী সম্পাদক : মহসিন রায়হান। ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : আকরাম হোসাইন।  সহ-ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : ওমর ফারুক।  আইন উপদেষ্টা : মোঃ তৌহিদুল ইসলাম, এডভোকেট বাংলাদেশ সু্প্রিম কোর্ট ঢাকা।

প্রধান কার্যালয় : ২১৯ মাজার রোড, মিরপুর, ঢাকা-১২১৬। বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয় : আরএকে টাওয়ার (৯ম তলা), প্লট নং ১/এ,  নিশাত নগর, তুরাগ, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০।

📲 মোবাইল : ০১৭১৩৯২৬২৭৭,০১৭১০১৪২০১৭

📧  Email : khoborerdakghar@gmail.com

“দৈনিক খবরের ডাকঘরে” প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখক/প্রতিনিধির। আমরা লেখক/প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সব সময় নাও থাকতে পারে । তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। ডেইলি খবরের ডাকঘর 🗞

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত খবরের ডাকঘর. কম ©২০১৮ -২০২১||

Design & Development By Hostitbd.Com
error: কপি করা নিষেধ !!